সুস্থ্য হৃদপিন্ডের জন্য কিছু ডায়েট টিপস

আজকের দিনে সুস্থ্য হৃদপিন্ড একটি মূল্যবান সম্পদ। আমাদের দেশের প্রায় সব খাবারেই ভেজাল মেশানো হয় , সাথে আছে প্রিজারভেটিবস এর ধাক্কা।এর উপর দৈনিক খাদ্যাভ্যাশটাও যদি অস্বাস্থ্যকর হয় তবে তো আর কথাই নেই।একগাদা রোগে মালিক হয়ে যাবেন অচিরেই। তাই সময় থাকতেই যত্ন নিন হৃদয়ের।

যে খাবার গুলো হৃদপিন্ডকে সুস্থ্য রাখে:
১.Omega-3 fatty acids দেহের জন্য খুব উপকারী। এটা পাওয়া যায় corn, safflower, sunflower ও canola oil ,Almonds,Flaxseed, আখরোট, মাছের তেলে ।
২.Olive, canola oil, চীনা বাদম থেকে পাওয়া যায় monounsaturated fats। যা দেহের জন্য ভাল এবং শরীর সহজেই এটা ভাঙ্গতে ও ব্যবহার করতে পারে।
৩.তাজা ফল ও শাক সবজি দৈনিক খাবার তালিকায় রাখতে হবে। এগুলো থেকে খাদ্য আশঁ পাওয়া যায় যা কোলেস্টেরল কমাতে বিশেষ ভাবে কার্যকরী।
৪.সকালের নাস্তায় উচ্চ আশঁযুক্ত খাবার রাখুন।যেমন- লাল আটার রুটি বা ওট মিল ।
৫.মাঝে মাঝে সকালের নাস্তায় ভিন্ন ধরনের কিছু ট্রাই করতে পারেন। যেমন- লাল চাল, barley, whole-wheat pasta ইত্যাদি।এতে স্বাদে ভিন্নতা আসবে, সেই সাথে আশঁও পাওয়া যাবে বেশি পরিমানে।
৬.প্রতিদিন ১ চামচ Flax seed খাওয়া উচিৎ। Flaxseed মোটা গুড়া করে সালাদের উপর ছিটিয়ে দিন বা সকালে কোন সিরিয়াল খেলে তাতে মিশিয়ে খেতে পারেন।
৭.snack হিসেবে খেতে পারেন তাজা যেকোন ফল বা কাচা সবজি যেমন-শশা, গাজর ইত্যাদি বা ১ মুঠ বাদাম বা whole-grain crackers।
৮.খাবারে বিভিন্ন ধরনের ডাল যোগ করুন।
৯.সীম, মটরশুটি,বরবটি,kidney beans(রাজমা) খেতে পারেন বিভিন্ন ভাবে যেমন-সালাদ বা সুপে দিতে পারেন।
১০.লাল মাংস এড়িয়ে চলুন ।ফার্মের মুরগীতে বেশ ভালো পরিমান চর্বি থাকে,তাই সম্ভব হলে ফার্মের মুরগী এড়িয়ে চলুন অথবা চর্বি ভালভাবে ছাড়িয়ে নিন।
১১. খাবারে বিভিন্ন রকমের মাছ (চিংড়ি ও অন্যান্য সেল ফিস বাদে) রাখুন।

একটু সচেতন ভাবে খাবার নির্বাচন করলেই আমরা একটি সুস্থ্য হৃদপিন্ডের অধিকারী হতে পারবো।

Please Share:

Related posts

Leave a Comment