আপনার শিশু কি সঠিক ভাবে বেড়ে উঠছে?

শিশুর বেড়ে ওঠার স্বাভাবিক ধাপ গুল না জানার কারনে আমাদের অনেকেই বাচ্চার বিকাশগত সমস্যা গুল ধরতে পারি না এবং দেরি করে ব্যবস্থা নেয়ার কারনে বাচ্চার বিকাশ অনেক সময় বাধাগ্রস্থ হয়। আসুন আমরা জেনে নেই একটি স্বাভাবিক বিকাশ হচ্ছে এমন বাচ্চা কোন বয়সে কি কি করে থাকেঃ ৪ মাস বয়সেঃ উজ্জ্বল রঙের বস্ত ও এর নড়াচড়ার দিকে খেয়াল করে এবং সাড়া দেয়। শব্দের দিকে ঘুরে তাকায়। অন্যের চেহারার দিকে আগ্রহ নিয়ে তাকায়। আপনি তার দিকে তাকিয়ে হাসলে সেও ফিরতি হাসি দেয়। ৬ মাস বয়সেঃ আপনার সাথে আনন্দ নিয়ে যুক্ত থাকে। তার…

Read More

ডায়াবেটিক রোগীর চিনিশুন্য হওয়া

ডায়াবেটিক রোগী রক্তে সুগার নিয়ন্ত্রন করার জন্য যে ঔষধ বা ইনসুলিন ব্যবহার করে তার মাত্রা যদি খুব বেশী হয়ে যায় অথবা রোগী যদি সময় মতো খাবার না খায়, কিংবা বমি বা পাতলা পায়খানা করে তাহলে হঠাৎ করে রক্তে গ্লুকোজ এর মাত্রা খুব কমে যেতে পারে। যখন এর মাত্রা খুবই কমে যায় তখন রোগী অসুস্থ হয়ে অজ্ঞান পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে। কাজেই এই ব্যপারে শুরু থেকেই সকল রোগীর খুব সতর্ক থাকতে হবে এবং জেনে নিতে হবে এমন অবস্থা হলে কি করতে হবে। অসুধ বা ইনসুলিন ব্যবহার করার পরে রোগী যদি অসুস্থ…

Read More

ধুমপান ত্যাগে করণীয়

সবার আগে নিজের মন থেকে সব যুক্তিগুলো সাজিয়ে নিয়ে সীদ্ধান্ত নিন, মনকে দৃঢ করুন, ইচ্ছা শক্তি বাড়ান। আপনার ব্যক্তিত্বের শক্তিশালী দিকগুলো নিজের কাছে তুলে ধরুন এবং ঠিক করুন আজ থেকেই ছেড়ে দিচ্ছেন ধুমপান। বাসায়, ড্রয়ারে বা পকেটে সিগারেট থাকলে তা কোনোরকম দ্বিধা না করে এখনই ফেলে দিন, শুরু হোক আপনার সাহসী পথ চলা। যে সকল স্থানে ধুমপান নিষিদ্ধ সে সকল স্থানে (সেটা হতে পারে মসজিস, যাদুঘর, লাইব্রেরী অথবা আপনার অফিসের কক্ষ অথবা হাসপাতালে) আপনার মূল্যবান সময় কাটান। ক্যান্সার আক্রান্ত আত্মীয়স্বজন থাকলে তাদের সাথে অনেক সময় কাটান। হাসপাতালো কোন পরিচিত রোগী…

Read More

এনজিওপ্লাস্টি (PTCA) করা রোগীদের জন্য পরামর্শ

১– পরামর্শ পত্রে প্রদত্ত অসুধ অবশ্যই নিয়মিত সেবন করতে হবে। ২– ওজন নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে। ৩– চর্বি জাতীয় খাবার কম খেতে হবে। ৪– ধুমপান, জর্দা, তামাকপাতা, গুল ইত্যাদি দ্রব্য ব্যবহার চিরতরে বন্ধ করতে হবে। ৫– বুকে চাপ বা ব্যথা অনুভব হলে বা শ্বাসকষ্ট হলে দ্রুত হৃদরোগ হাসপাতালের বহিঃবিভাগে দেখা করুন অথবা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। ৬– এনজিওপ্লাস্টি করার প্রথম সপ্তাহে বিশ্রামে থাকতে হবে। পরবর্তীতে প্রতিদিন হাল্কা কাজ কর্ম থেকে শুরু করে ক্রমান্বয়ে স্বাভাবিক কাজকর্মে ফিরে যেতে হবে। খাদ্য নির্দেশনাঃ এনজিওপ্লাস্টি করা রোগীদের খাদ্য নির্দেশনা করোনারি হৃদরোগীদের খাদ্য নির্দেশনার অনুরূপ। অর্থাৎ–…

Read More

শীতকালেও তরতাজা সজীব ঠোঁট

প্রীতি ওয়ারেছা গোলাপের পাঁপড়ির মতো ঠোঁট। কমলার রোয়ার মতো ঠোঁট -কত যে উপমা! ঠোঁটকে আরো রহস্যময় করতে কত যে প্রসাধনের ব্যবহার! চেহারাকে আবেদনময় করতে ঠোঁটকে প্রতিনিয়ত নতুন রূপে উপস্থাপন করার প্রয়াস! ঠোঁট আমাদের সৌন্দর্য্যরে অন্যতম একটি অংশ। ঠোঁট মিউকাস মেমেব্রেন দ্বারা আবৃত। ঠোঁটে কোন তৈল গ্রন্থি থাকে না। এখন শীতকাল। সারাবছর ঠোঁটের যত্ন নিয়ে তেমন একটা না ভাবলেও এখন ঠোঁট নিজেই এখন উপযাচক হয়ে আমাদের ভাবাচ্ছে। ঠোঁটের ত্বক ভীষণ স্পর্শকাতর এবং নরম। ঠান্ডা, গরম, সূর্যরশ্মি , দূষণ সবকিছুই ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর। শীতকালে ঠোঁটের যন্ত্রনায় ভোগেননি এমন মানুষ পাওয়া যাবেনা। কারণ…

Read More

যাত্রাপথে নিরাপদ খাবার

ভ্রমণ আমরা সকলেই পছন্দ করি। অনেকের কাছে এটা নেশার মতো। অজানাকে জানার দুর্বার আগ্রহে নতুন নতুন স্থানে ভ্রমণ সকলেই পছন্দ করেন। যাত্রাকালে খাবার একটা বড় বিষয়। খাবারের কারনেই অধিকাংশ সময় মানুষ ভ্রমনে অসুস্থ হয়ে পড়ে অথচ কিছু সাধারণ বিষয়ের দিকে নজর দিলে এসব ঝামেলা অনেকটা এড়ানো সম্ভব। আমাদের দেশে পানিবাহিত রোগ অনেক বেশি হয়। টাইফয়েড, জন্ডিস, আমাশয় খুব পরিচিত পানিবাহিত রোগ। যাত্রা পথে বিশুদ্ধ পানির প্রয়োজন কিন্তু খুব বেশি পানি সাথে করে নেওয়া সম্ভব হয়না। এজন্য সাথে নিতে পারেন হ্যালোজেন ট্যাবলেট। এক লিটার পানিতে একটা ট্যাবলেট ছেড়ে দিয়ে ৩০-৬০ মিনিটের…

Read More

পেনিস এনলারজমেন্ট মেথড গুল কি কাজ করে?

মানুষ যেদিন থেকে সোজা হয়ে হাঁটতে শিখেছে সেদিন থেকেই হয়ত তার মনের মধ্যে প্রশ্ন জেগেছে যে, আমার পুরুষাঙ্গ কিভাবে আরও বড় করা যায়? এখনও এমন পুরুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর হবে যার মনের মধ্যে এই প্রশ্ন আসেনি। আমরা প্রতিনিয়ত এই ধরনের প্রশ্ন আমাদের প্রশ্ন উত্তর বিভাগে পাই। অনেক সময় একি প্রশ্নের চাপে আমরা বেশিরভাগ এই ধরনের প্রশ্ন প্রকাশ করি না। এর জন্য আমরা ক্ষমা প্রার্থী। আর এই প্রশ্নের সকল উত্তর নিয়ে একটি লেখা অনেক দিন ধরে লেখি লেখি করেও লেখা হয়ে উঠেনি। হরতালের এই অবশরে আপনাদের এই প্রশ্ন গুলকেই সবিস্তারে আলোচনা…

Read More

ঈদের আহার

আজ ঈদুল আযহা, কোরবানির ঈদ। খুশির দিনে রকমারি খাবার তো সকলেই চাই, একদিন না হয় বাধ ভেঙ্গে ভোজন চলুক, তবে কিছু বিষয় খেয়াল রেখে ভোজনে মাতলে শরীরের জন্য ভালো হয়। খাবার নিয়ে সমস্যা শুরু হয় মূলত ৪০ এর পর থেকেই। অপেক্ষাকৃত তরুণদের মেনে বেছে খাওয়া তেমন প্রয়োজন পড়ে না যদিও এখন বলা হচ্ছে তরুনদেরও খাবার নিয়ে সচেতন হতে। ঈদে গরু, খাসীর সাথে ফ্রি হিসেবে আমরা পাচ্ছি তেল-চর্বি। রান্নায় তেল-চর্বি না থাকলে স্বাদ যেমন আসেনা তেমনি তেল-চর্বির কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকিও বেড়ে যায় বহুগুণে। উচ্চরক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হৃদরোগে যারা আক্রান্ত তাদের জন্য গরু-খাশির…

Read More

স্বাস্থ্যকর যৌন জীবনের জন্য খাদ্য

যৌন সমস্যা নিয়ে প্রতিনিয়ত পাচ্ছি ফোন কল, চেম্বারে আসছেন ভুক্তভোগীরা। এদের মাঝে শতকরা ৯৯ ভাগই পুরুষ। সকলেই কমবেশি একই ধরনের সমস্যার কথা বলেন ঘুরিয়ে ফিরিয়ে। প্রত্যেকেই মনে করেন তার সমস্যা আর কারো হয় না এবং এই সমস্যা থেকে মুক্তি নেই। দুসচিন্তার কারনে শারীরিক সমস্যার থেকে বড় হয়ে দেখা দেয় মানসিক সমস্যা। অথচ কিছু সাধারণ খাবারেই আছে অধিকাংশ যৌন সমস্যার ভালো সমাধান। সমস্যায় পড়লে আমরা ওষুধের মাঝে খুঁজি মুক্তি, অথচ আশেপাশের কত খাবারে যে রয়েছে জাদুকরী কেরামতি সেটা আমরা জানি না। সবুজ শাকপাতা দিয়ে শুরু করা যাক। দেশি সবুজ শাক, পালং…

Read More

হস্তমউথুন সম্পর্কে প্রচলিত কিছু ভুল ধারনা

নারী ও পুরুষ উভয় গোত্রের মানুষই জীবনের কোন না কোন সময় হস্তমউথুন এর মাধ্যমে নিজেদের যৌন চাহিদা পূরণ করে থাকে। যদিও এটি খুবি স্বাভাবিক একটি যৌনাচার, তবু ও আমাদের মধ্যে এর সম্পর্কে কিছু ভুল ধারনা প্রচলিত আছে। এই ভুল ধারনা গুলর মধ্যে সবচেয়ে প্রচলিত কিছু ভুল ধারনা নিয়ে আমরা আজ আলোকপাত করবঃ ভুল ধারনাঃ হস্তমউথুন শুধু কম বয়স্ক দের জন্য হস্তমউথন একটি সারা জীবন চলমান ক্রিয়া। পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ৭০ থকে ৯০ ভাগ নারী পুরুষ হস্তমউথুন করে থকেন। ভুল ধারনাঃ হস্তমউথনের কারনে চোখের জতি কমে যাওয়া, চুল পড়া, ব্রন ওঠা,…

Read More