ডাঃ শুভেন্দু মাজি–ক্যান্সার রোগীদের মাঝে যিনি জ্বেলে চলেছেন নতুন আশার প্রদীপ

ডাঃ শুভেন্দু মাজি–ক্যান্সার রোগীদের মাঝে যিনি জ্বেলে চলেছেন নতুন আশার প্রদীপ

[ স্বাস্থ্য বাংলা প্রতিবেদক]

আনুমানিক রাত ১০টা। কোলকাতার টালিগঞ্জ এলাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালের জনৈক ক্যান্সার বিশেষজ্ঞের চেম্বারের সামনে তখনো ৮/১০ জন রোগীর ভিড়। খোঁজ নিয়ে জানলাম, ডাক্তারবাবু চেম্বারেই আছেন। তাঁর সেদিনের মতো রোগী দেখা শেষ। অথচ যারা এসেছেন তাঁরাও আজই ডাক্তারবাবুকে দেখাতে চান অথচ আগে থেকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট করা নেই – হুট করেই চলে এসেছেন দুই বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সিএমসিএইচ ভ্যেলোরের ডাক্তার দেখাতে । এমন সময় চেম্বার ছেড়ে বেড়িয়ে এলেন এক সুদর্শন তরুণ। অপেক্ষারত রোগীদের দিকে চকিত দৃষ্টি নিক্ষেপ করে স্মিত হেসে বললেন, “এসে পড়েছেন যখন, আমি সবাইকেই একে একে দেখে দেবো; অনুগ্রহ করে ধৈর্য্য ধরে একটু বসতে হবে, কেমন”। হঠাৎ আমার দিকে চোখ পড়তেই প্রায় হৈহৈ করে এগিয়ে এসে বললেন, আপনি নিশ্চয় আমাদের ওপার বাংলার ‘স্বাস্থ্য বাংলা’ থেকে, আসুন ভাই। রোগী দেখার ফাঁকে ফাঁকে আপনার সাথে কথা বললে কিছু মনে করবেন নাতো, হাজার হলেও আপনি আমার সম্মানিত অতিথি। এই হলেন ডাঃ শুভেন্দু মাজি -শান্ত, বিনয়ী, রোগী অন্ত প্রাণ সুদক্ষ শল্য চিকিৎসক ও ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ। এপ্রসঙ্গে বলে রাখি, কয়েকজন চেনা জানা রোগী, কোলকাতার সহকর্মী ও বন্ধু মহলের কাছে এই তরুণ নিবেদিত প্রাণ চিকিৎসকের কথা শুনে স্বাস্থ্য বাংলার পক্ষ থেকে তাঁর সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে উঠি আর তাই পেশাগত কারণে আমার সাম্প্রতিক হায়দ্রাবাদ থেকে ফেরার পথে তাঁর সাথে দেখা করার পূর্বাঅনুমতি নিয়ে রাখি।

এদেশের মতো ওপার বাংলাতেও চিকিৎসকদের প্রতি অভিযোগের অন্ত নেই। অযথা ওষুধ লেখা, অহেতুক মেডিক্যাল ইনভেষ্টিগেশন, রোগীকে সময় না দেওয়া, ঔষধ কোম্পানী থেকে কমিশন খাওয়া, অতিরিক্ত অপারেশন খরচ। এমন নানা অভিযোগের মাঝেও চিকিৎসা পেশার প্রতি প্রায় শত ভাগ কমিটেড এই চিকিৎসকের কথা ভাবলেই শ্রদ্ধায় মাথা নত হয়ে আসে। চোখের সামনে দেখে বড়ই অবাক হলেম, রোগীদের কিভাবে আশা, সাহস যুগিয়ে চলেছেন! মুখ ফুটে বলতেই বলে উঠলেন, ভাই শুধু ক্যান্সার সার্ভাইভাররাই নয় – আমিও যে এক সহযোদ্ধা’ তাঁদের সাথে, পাশে না থাকলে তারা একা কিভাবে ক্যান্সার জয় করবে বলুন। আমার অভিভুত হবার পালা।

শুধু আচার ব্যবহারেই নয়, আপন পরিধিতেও তিনি একই রকম সমুজ্জ্বল। এমবিবিএস (গোল্ড মেডালিস্ট), এমএস (জেনারেল সার্জারী), সেই সাথে পোষ্ট ডক্টোরাল করেছেন সার্জিক্যাল অনকোলোজী থেকে। দেশে বিদেশের বহু সরকারী-বেসরকারী নামকরা প্রতিষ্ঠানে নিয়েছেন ক্যান্সারের ওপর নানা উচ্চতর প্রশিক্ষণ। ভারতের চেন্নাইয়ের বিখ্যাত ক্রিস্টিয়ান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল (সিএমসিএইচ ভ্যেলোর) এ সার্জিক্যাল অনকোলজিস্ট হিসেবে সুনামের সাথে কাজ করেছেন। কৃতিত্বের সাথে কাজ করেছেন কোলকাতার প্রখ্যাত এস,এস,কে,এম, (পি,জি,) হাসপাতালে, যুক্ত আছেন চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউট (সিএনসিআই) হাসপাতালে, আর ব্যক্তিগত চেম্বার এই তাঁর বর্তমান ঠিকানা।   

                                               ডাঃ শুভেন্দু মাজি

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেলো, তিনি জেনারেল সার্জারীসহ মূলতঃ সবধরনের ছোট-বড় ক্যানসার সার্জারীতেই পারদর্শী। বিশেষ করে স্তন ক্যান্সার, মুখের ক্যান্সার, হেড নেক ক্যান্সার, থাইরয়েড ক্যান্সার, এন্ডোক্রাইন ক্যান্সার ইত্যাদি। একইভাবে আবার গ্যাস্ট্রিক, কোলোরেক্ট্যাল, প্রস্টেট ও ইউরোলজিক্যাল এবং গাইনোকোলজিক্যাল ক্যান্সার সার্জারীতে বিশেষভাবে দক্ষ। আর দীর্ঘ আটবছরেরও অধিক তিনি সুনামের সাথে সবরণের ক্যান্সারের চিকিৎসা করে আসছেন। একাধারে তিনি ক্লিনিশিয়ান, অ্যাকাডেমিশিয়ান অন্যদিকে তেমনি ক্যান্সার রোগ গবেষক। সেইসাথে আমেরিকান সোসাইটি অব ক্লিনিক্যাল অনকোলজী, ইউরোপিয়ান সোসাইটি অব মেডিক্যাল অনকোলজী, ইন্ডিয়ান এসোসিয়েশন অব সার্জিক্যাল অনকোলজী, এসোসিয়েশন অব সার্জেনস অব ইন্ডিয়া, দেশে বিদেশের এমন সব নানা প্রফেশনাল অর্গানাইজেশনের তিনি সক্রিয় সদস্য।       

যা দেখলাম, তার সঙ্গে রোগীর রোগ বিষয়ক আলাপে তিনি খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে সব জেনে নিয়ে, শুনে, সমস্ত পুরোনো মেডিক্যাল রিপোর্টগুলো ঘেঁটে দেখে, রোগীর সমস্যা বিষয়ে রোগীকে বুঝিয়ে তারপর রোগীর জন্য ব্যবস্থাপত্র লিখতে বসেন। চোখের সামনেই তিনি এক রোগীকে অন্য একজন চিকিৎসকের কাছে রেফার্ড করলেন। আমি জিজ্ঞেস করায় বললেন, ঐ ডাক্তারবাবু এধরণের কেস খুব ভালো বুঝেন, রোগীর ভালোর জন্য উনার মতামতটা খুবই প্রয়োজনীয়। আমার আবার মুগ্ধ হবার পালা!

আরেক রোগীর অপারেশনের খরচ শুনে তার অস্বচ্ছলতার কথা জানালে, তিনি হাসতে হাসতে বললেন, এ নিয়ে এতো ভাবনা কি, চিকিৎসাটাতো আগে করাতে হবে, যতটুকু যোগাড় করতে পারেন নিয়ে আসবেন – বাকীটুকু আমি দেখবো কি করা যায়। আবারো মোহিত হলেম আপাদমস্তক সৎ একজন নির্ভেজাল তরুণ চিকিৎসকের পরিচয় পেয়ে। এই সুযোগটা হাতছাড়া করতে ইচ্ছে হলো না, হুট করেই বলে ফেললাম, আমাদের দেশের অনেক গরীব ক্যান্সার রোগীদের কথা যারা স্বল্প খরচে ট্রিটমেন্টের জন্য হন্যে হয়ে ভালো সৎ চিকিৎসক খুঁজে মরেন, অনেক জটিল ক্যান্সার রোগী সঠিক চিকিৎসকের কাছে যেতে পারেন না; তিনি স্বভাবসিদ্ধ হাস্যোজ্জল মুখে বললেন, ঐ বাংলাটাও আমার অনেক আপন, ভাববেন না ওদেশের কেউ আমার কাছে আসলে সম্ভাব্য সাশ্রয়ী খরচে সর্বোত্তম চিকিৎসা সেবাটি দেবার সবসময়ই আমি চেষ্টা করে যাই, আপনার দেশের গরীব বা জটিল ক্যান্সার রোগীদের নিশ্চয় আমি আরো অনেক যত্ন নিয়ে দেখে দিবো।

চেন্নাইয়ের বিখ্যাত ক্রিস্টিয়ান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল (সিএমসিএইচ ভ্যেলোর)’এ সুনামের সাথে কাজ করা এই তরুণ ও প্রতিশ্রুতিশীল ক্যান্সার রোগ বিশেষজ্ঞ প্রচারবিমুখ ডাঃ শুভেন্দু মাজি এভাবেই অভাগা ক্যান্সার রোগীদের বুকে নিরন্তর বেঁচে থাকার স্বপ্ন বুনে চলেছেন – তার সর্বস্ব মেধা দিয়ে ক্যান্সার রোগীদের সেবা দিয়ে চলেছেন। দেশের প্রতি দশের প্রতি, মানবতার প্রতি অনেক ভালোবাসা দিয়ে দায় পালন করে চলেছেন।। দেশ বিদেশের যে কোন প্রান্ত থেকেই সবধরনের ক্যান্সার রোগীরা তাঁদের চিকিৎসার ক্ষেত্রে এই রোগী দরদী চিকিৎসকের পরামর্শ পেতে স্বাস্থ্য বাংলার সহায়তা (০১৬৮৪৩৪২৪৪৯ ) নিতে পারেন।

Please Share:

Related posts

Leave a Comment