কপার টি

অনেক দম্পত্তির কাছেই রোজ রোজ বড়ি খাওয়া বা কনডম ব্যবহার করা একটা বিরক্তিকর কাজ বলে মনে হয়; আই,ইউ,সি,ডি (কপার টি) তাদের জন্যই ঝামেলাহীন কার্যকরী কম খরচের এক জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি। একবার আই,ইউ,সি,ডি ব্যবহার করলে ১ বছর থেকে ৭/৮ বছর পর্যন্ত অন্য কোনো পদ্ধতি ব্যবহার না করেও জন্মনিয়ন্ত্রন কার্যকর রাখা যায়।

আই,ইউ,সি,ডি ইংরেজি অক্ষর T এর মতো দেখতে একটি Device যা মহিলাদের জরায়ুতে যোনিপথ দিয়ে প্রবেশ করানো হয়। বর্তমানে তিন ধরনের আই,ইউ,সি,ডি সহজলভ্য, লিপিস লুপ-কপার টি ও হরমোন নিসৃত করা আই,ইউ,সি,ডি। এর মধ্যে হরমোন নিসৃতকারিটি মাত্র ১ বছর কার্যকর থাকে, অন্য গুলো ৭-৮ বছর পর্যন্ত কার্যকর থাকতে পারে।

আই,ইউ,সি,ডি ব্যবহারের পূর্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হয়, স্বামী-স্ত্রী দুজন সম্মত থাকলেই কেবল এটা ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হয়। জন্মনিয়ন্ত্রন বিষয়ের মহিলা চিকিৎসক কর্মকর্তাগন আই,ইউ,সি,ডি পরিয়ে থাকেন। মাসিক শেষ হবার পরপরই এটা পরিয়ে দেবার উৎকৃষ্ট সময়, এছাড়া সন্তান হবার পরপর ও এটা পরানো যায়। কোনো মহিলার জরায়ুতে বা ডিম্বাশয়ে ইনফেকশন থাকলে কোনো অবস্থাতেই আই,ইউ,সি,ডি পরানো যায়না।

আই,ইউ,সি,ডি ব্যবহারের পর অনেক সময় মাসিক এর সময় বেশী রক্তপাত হতে পারে এবং তলপেটে ব্যথা করতে পারে। কারো কারো ক্ষেত্রে আবার আই,ইউ,সি,ডি নিজে নিজেই বের হয়ে পরে যেতে পারে। এছাড়া একটোপিক প্রেগনেন্সি জাতীয় সমস্যাও আই,ইউ,সি,ডি ব্যবহারে বেশী দেখা যায়।

ব্যবহার করা অবস্থায় সন্তান নেবার ইচ্ছা হলে আই,ইউ,সি,ডি বের করে নেয়া যায় এবং নির্দিষ্ট বিরতির পর সন্তান নেয়া যায়। জন্মনিয়ন্ত্রনে আই,ইউ,সি,ডি এর সাফল্যের হার খুবই বেশী (৯৭%), যতটুকু ব্যর্থতা তা আই,ইউ,সি,ডি নিজে নিজে বের হয়ে যাবার কারনে হয়, তাই এ ব্যপারে সাবধান থাকতে হবে। কম দায়িত্বজ্ঞান সম্পন্ন দম্পত্তির জন্য এটা খুবই কার্যকর পদ্ধতি। যাদের বড়ি খাওয়ায় সমস্যা হয় এবং অন্য পদ্ধতি আরামদায়ক মনে হয়না তারা সহজেই এটা ব্যবহারের কথা ভেবে দেখতে পারেন।

Please Share:

Related posts

Leave a Comment